বৃহস্পতিবার, ৬ অক্টোবর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২১ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কমলগঞ্জে ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প উদ্যোক্তাদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন ও মতবিনিময় ॥ সব উদ্যোক্তা এক প্লাটফর্মে এসে শিল্পের উন্নয়নে কাজ করতে হবে -সুকোমল সিংহ চৌধুরী



11111
কমলকুঁড়ি রিপোর্ট ॥
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প উদ্যোক্তা উন্নয়ন পরিষদের আয়োজনে এবং ব্যাংক অফিসার্স ফোরাম, কমলগঞ্জ এর সহযোগিতায় ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প উদ্যোক্তাদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন ও মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। বৃহষ্পতিবার বিকাল ৪টায় স্থানীয় ইসলাম কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত ধন্যবাদ জ্ঞাপন ও মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংক প্রধান কার্যালয়ের বিআইবিএম ও বিবি এর এস.এম.ই এর প্রধান উপদেষ্টা সুকোমল সিংহ চৌধুরী।
ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প উদ্যোক্তা পরিষদের সভাপতি, লেখক-গবেষক আহমদ সিরাজের সভাপতিত্বে ও ব্যাংক অফিসার্স ফোরাম, কমলগঞ্জ এর সভাপতি মো. সালাহ উদ্দিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন কমলগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. রফিকুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার সফিকুল ইসলাম, বাংলাদেশ ব্যাংক সিলেট এর ডেপুটি জনারেল ম্যানেজার শাখাওয়াত হোসেন ভুঁইয়া, বিসিক, মৌলভীবাজার এর উপ-পরিচালক এ. এইচ. হামিদুল হক, আই এম এসএমই এর বাংলাদেশস্থ সভাপতি সৈয়দ আহমদ কিরণ, সোনালী ব্যাংকের আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক রণধীর দাশ। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ই-সেবী কর্মকর্তা মোশারফ হোসেন, সাপ্তাহিক কমলগঞ্জ সংবাদ সম্পাদক মো. সানোয়ার হোসেন, নারী উদ্যোক্তা বিলকিস বেগম, হোসনে আরা বেগম, ব্যাংক অফিসার্স ফোরাম, কমলগঞ্জ এর সাধারণ সম্পাদক সঞ্জয় কুমার দেব, ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প উদ্যোক্তা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আলতাফ মাহমুদ বাবুল প্রমুখ। অনুষ্ঠানের শুরুতে সমাজকল্যাণ মন্ত্রী, বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ মহসীন আলীর মৃত্যুতে ১ মিনিট দাঁড়িয়ে নিরবতা পালন করা হয়।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ ব্যাংক প্রধান কার্যালয়ের বিআইবিএম ও বিবি এর এস.এম.ই ফ্রাকাল্টি কনসালটেন্ট সুকোমল সিংহ চৌধুরী বলেন, বৈচিত্রময় সংস্কৃতির ধারক-বাহক ও অপার সম্ভাবনাময় উপজেলা হচ্ছে কমলগঞ্জ। এখানে বাঁশ-বেত, মধু, ফুল-শলা ঝাড়–, মৃৎ ও তাঁত শিল্প প্রভৃতি নারী উদ্যোক্তারা তাদের কর্মকান্ডে কমলগঞ্জকে অনেক দুর এগিয়ে নিয়েছে। ইতিমধ্যে তারা ব্যাংক ঋণ নিয়ে তাদের স্ব স্ব পেশাকে কাজে লাগিয়ে স্বাবলম্বি করে তুলেছেন। দৃঢ় মনোবল ও পরিকল্পনা নিয়ে সবাইকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে এগিয়ে যেতে হবে। সব উদ্যোক্তা এক প্লাটফর্মে এসে শিল্পের উন্নয়নে কাজ করতে হবে। কোন প্রকার ঋণ খেলাপি করবেন না। বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষ থেকে সব ধরণের সহযোগিতা করা হবে।
অনুষ্ঠানে কমলগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন পর্যায়ের দুই শতাধিক নারী উদ্যোক্তা উপস্থিত ছিলেন। উদ্যোক্তাগণ তাদের নানা ধরণের সমস্যা ও সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনা করেন।

অনুষ্ঠানে সোনালী ব্যাংক লি: কর্তৃক ৬ জনকে ১ লক্ষ ১০ হাজার ,  জনতা ব্যাংক ১ জনকে ৩০ হাজার, অগ্রণী ব্যাংক ১ জনকে ৪৫ হাজার ও রূপালী ব্যাংক লি: ১ জনকে ২ লক্ষ টাকা মোট  ৯জন বাঁশ, বেত, মধু, ফুল, শলা, ঝাড়–, মৃৎ ও তাঁত শিল্প উদ্যোক্তাদের মধ্যে ৩ লাখ ৫৮ হাজার টাকার ঋণ প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠানে সুকোমল সিংহ চৌধুরীকে একটি সম্মাননা ক্রেষ্ট প্রদান করেন জনতা ব্যাংক ব্যবস্থাপক মো: সালাউদ্দিন, সোনালী ব্যাংক ব্যবস্থাক সঞ্জয় কুমার দেব, কৃষি ব্যাংক ব্যবস্থাপক, অগ্রণী ব্যাংক ব্যবস্থাপক নিয়াজ মাহমুদ, রূপালী ব্যাংক ব্যবস্থাপক সমীরণ সিংহ ।