শনিবার, ১ অক্টোবর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৬ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রহিমপুরে ৪টি গ্রামে বিদ্যুতায়নের উদ্বোধন : প্রত্যেক ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ সংযোগের ব্যবস্থা করা হবে -সাবেক চিফ হুইপ আলহাজ্ব উপাধ্যক্ষ মো. আব্দুস শহীদ এমপি



কমলকুঁড়ি রিপোর্ট ॥

1-0
মহান জাতীয় সংসদের সাবেক চিফ হুইপ, মৌলভীবাজার জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব উপাধ্যক্ষ মো. আব্দুস শহীদ এমপি বলেছেন, প্রত্যেক ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ সংযোগের ব্যবস্থা করে দেয়া হবে। দেশে বিদ্যুতের কোন ঘাটতি নেই। শেখ হাসিনার সরকার সারাদেশে বিদ্যুতের আলোয় আলোকিত করে তুলবেন। তিনি বলেন, বাংলাদেশ এখন নি¤œ মধ্য আয়ের দেশ। ২০২১ সালে মধ্য আয়ের দেশে রূপান্তরিত হবে। আওয়ামীলীগ সরকার জনগণের জন্য কাজ করে। দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফোঁটাবার জন্য সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। আব্দুস শহীদ বলেন, দেশে এখন উন্নয়নের জোয়ার শুরু হয়েছে। উন্নয়নের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে দলীয় জনপ্রতিনিধিকে সহযোগিতা করতে হবে। যারা আওয়ামীলীগের পরিচয় দিয়ে ভূমি দখল, মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন, গায়ের জোর খাটায় তারা আওয়ামীলীগ নয়, এদেরকে চিহ্নিত করে ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিরোধ করতে হবে।

1-1
তিনি ২৩ সেপ্টেম্বর বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় কমলগঞ্জ উপজেলার ছয়কুট কালীমন্দিরে রহিমপুর ইউনিয়নের জগন্নাথপুর, বড়চেগ, প্রতাপী, কাঁঠালতলী গ্রামে ১ কোটি ৪৩ লক্ষ ৩ হাজার টাকা ব্যয়ে নতুন নির্মিত ৯.৫৩৫ কি:মি: বিদ্যুৎ লাইনে শুভ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।
রহিমপুর ইউপি (স্বর্ণপদকপ্রাপ্ত) চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক ইফতেখার আহমেদ বদরুল এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক রফিকুর রহমান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার সফিকুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি এম. মোসাদ্দেক আহমেদ মানিক, ভাইস চেয়ারম্যান মো. সিদ্দেক আলী, মৌপবিস এর জিএম শিবুলাল বসু, ডিজিএম এম হাসনাত হাসান, মুন্সীবাজার ইউপি চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মোতালিব তরফদার, যুক্তরাজ্য সুয়ানসী শাখার আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মো. হাবিবুর রহমান মকবুল, এলাকা পরিচালক প্রভাষক আব্দুল আহাদ। রহিমপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ এর সহসভাপতি বিকাশ চন্দ্র পালের উপস্থাপনায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মো: সানোয়ার হোসেন, স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা সোলেমান মিয়া প্রমুখ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাধ্যক্ষ মো. আব্দুস শহীদ এমপি বলেন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ বাংলাদেশ, ধর্ম যার যার উৎসব সবার। রাজনীতিকভাবে সবাই মিলেমিশে কাজ করতে হবে। কোন ব্যক্তি আইনের উর্ধ্বে নয়। জনগণের জন্য সবাই এক যোগে কাজ করতে হবে। যারা উন্নয়নে বাধা প্রদান করে, রাজনীতির নামে জ্বালাও পুড়াও করে, পেট্রোল বোমা মেরে যানবাহন, মানুষ ও পুলিশের ক্ষতি করে তাদেরকে একযোগে প্রতিরোধ করতে হবে। ওরা জনগণের কল্যাণ চায় না। দেশের অরাজকতা সৃষ্টি করছে। শেখ হাসিনার সরকার জনগণের সরকার। জনগণের ভোটে নির্বাচিত সরকার। তিনি বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার উদ্দেশ্যে বলেন, দেশের বাইরে গিয়ে অপপ্রচার চালিয়ে জরুরি নির্বাচন দাবী করে কোন লাভ নেই। আওয়ামীলীগ সরকার পুরো ৫ বছর মেয়াদ পর্যন্ত থাকবে। ২০১৯ সালে সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তাই যতই মিথ্যা অপপ্রচার করুন না কেন জনগণ আমাদের সাথে আছে।
আলহাজ্ব উপাধ্যক্ষ মো: আব্দুস শহীদ এমপিকে শতাধিক মোটর সাইকেল বহরে মুন্সীবাজার থেকে অনুষ্ঠান মঞ্চে নিয়ে আসা হয়। এসময় উপস্থিত আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, সুধীবৃন্দ মহু মহু করতালী ও বাদ্যযন্ত্রের ঝংকারে মাধ্যমে তাকে বরণ করা হয়।