মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কমলগঞ্জে অফিসার্স ক্লাবের উদ্যোগে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ



Pic---Officers Club
কমলকুঁড়ি রিপোর্ট ।।
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে অফিসার্স ক্লাবের উদ্যোগে শিক্ষার গুণগত মান উন্নয়নের লক্ষ্যে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহের মধ্যে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করা হয়েছে। সোমবার বিকাল ৩ টায় উপজেলা পরিষদ সভা কক্ষে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এসব শিক্ষা উপকরণ প্রদান করেন কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও অফিসার্স ক্লাবের সভাপতি মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম মিঞা।
কমলগঞ্জ অফিসার্স ক্লাবের সম্পাদক ও উপজেলা নির্বাচন অফিসার মোহাম্মদ ফরহাদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) মো. জাহাঙ্গীর আলম। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) আজগর আলী, কমলগঞ্জ গন মহা বিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ কামরুজ্জামান মিয়া, উপজেলা কৃষি অফিসার মো. শামসুদ্দিন, উপজেলা শিক্ষা অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) ইফতেখায়ের হোসেন ভূঁইয়া, আব্দুল গফুর চৌধুরী মহিলা কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো. হেলাল উদ্দিন, সুজা মেমোরিয়াল কলেজের প্রভাষক হারুনুর রশীদ ভূঁইয়া, সাংবাদিক মুজিবুর রহমান রঞ্জু, সাপ্তাহিক কমলগঞ্জ সংবাদ সম্পাদক মো. সানোয়ার হোসেন, সাংবাদিক প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ, সাংবাদিক শাহীন আহমেদ, কমলগঞ্জ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. হুমায়ুন কবীর, এম, এ, ওয়াহাব উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আব্দুল আজিজ, বড়চেগ ছুন্নিয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার মাওলানা তাজুল ইসলাম প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে কমলগঞ্জ উপজেলার ৩০টি মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানদের হাতে অফিসার্স ক্লাবের পক্ষ থেকে ২টি অভিধান ও কলম তুলে দেন কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম মিঞা।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও অফিসার্স ক্লাবের সভাপতি মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম মিঞা বলেন, এখন প্রতিযোগিতার যুগ। অসম্ভব বলে কিছু নেই। মানুষ গড়ার কারিগর শিক্ষকরা হচ্ছেন সম্মানিত ব্যক্তি, সমাজের আদর্শ। নিজ নিজ মেধা, যোগ্যতা ও দক্ষতা দিয়ে শিক্ষার্থীদের দক্ষ মানব সম্পদ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। শিক্ষক-অভিভাবক-এসএমসি-শিক্ষার্থী সহ সকলের আন্তরিক প্রচেষ্ঠায় আগামীতে ভাল ফল অর্জন করতে হবে। একটা নি:স্বব্দ সমুদ্র কখনো দক্ষ নাবিক হতে পারে না। তাকে দক্ষ হলে প্রতিযোগীতামূলক ভাবে দক্ষ হতে হবে। প্রজেটিভ চিন্তা করলে লাইফ প্রজেটিভ হবে, আর নেগেটিভ চিন্তা করে কখনো প্রজেটিভ হওয়া যায় না। এটাই মানতে হবে। আমাদের যদি ইচ্ছা থাকে মনের জোর থাকে অবশ্যই কাঙ্খিত লক্ষে যাওয়া সম্ভব। শিক্ষকরা সমাজের সবচেয়ে সম্মানীতি ব্যক্তি। আদর্শ ব্যক্তি। শিক্ষকরা ডেসনারী। শিক্ষার্থীরা ডেসনারী হিসাবে শিক্ষককে অনুসরণ করবে। শুধু শক্তি ও ক্ষমতা দিয়ে পৃথিবী জয় করা যায় না, কেউ পারেনি, ভালবাসা দিয়ে জয় করতে হয়।