শুক্রবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
Sex Cams

কমলগঞ্জে বিষধর সাপের কামড়ে চা কন্যার মৃত্যু || চিকিৎসা গাফলাতিতে কোম্পান্ডার বাসা ভাংচুর



কমলকুঁড়ি রিপোর্ট ॥
চা পাতি তুলতে গিয়ে বিষধর সাপের ছোবলে এক চা কন্যার মৃত্যু হয়েছে। চিকিৎসা সেবা পেতে গাফলতি হওয়ায় উত্তেজিত চা শ্রমিকরা চা বাগানের হাসপাতালে দায়িত্বে থাকা কোম্পান্ডারের বাসা ভাংচুর করে। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার (৬ আগষ্ট) সকালে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের কুরমার ফাঁড়ি বাঘাছড়া চা বাগানে।
স্থানীয় ইউপি সদস্য দ্বীপ নারায়ন গোয়ালা জানান, কুরমার ফাঁড়ি বাঘাছড়া চা বাগানের কাজল এন্ডদাসর এর মেয়ে চা কন্যা স্বপ্না এন্ডদাসর মঙ্গলবার (৪ আগষ্ট) প্রতিদিনের মতো চা পাতা তুলতে যায়। চা পাতা তোলার সময় বিকাল ৩টায় হঠাৎ একটি বিষধর সাপে ছোবল মারে। সাথে সাথে অন্যান্য শ্রমিকরা তাকে স্থানীয় হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত কোম্পান্ডার লুৎফুর রহমান একটি ইনজেকশন পুষ করেন। সারারাত গেলে অবস্থার অবনতি হওয়ায় চা শ্রমিকদের উত্তেজনায় বাধ্য হয়ে পরদিন বুধবার (৫ আগষ্ট) কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। সেখান থেকে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার আরও অবনতি হওয়ায় তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর কর্তব্যরত ডাক্তার স্বপ্নাকে মৃত বলে ঘোষনা করেন।
বৃহস্পতিবার সকালে চা শ্রমিকরা উত্তেজিত হয়ে চিকিৎসা সেবা গাফলতির কারণে হাসপাতালে কর্মরত কোম্পান্ডারের বাসা ভাংচুর করে। খবর পেয়ে স্থানীয় ইসলামপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সুলেমান মিয়া, চম্পারায় চা বাগান ব্যবস্থাপক, কুরমা চা বাগান ব্যবস্থাপক ইউপি সদস্য দ্বীপ নারায়ন গোয়ালা, ইউপি সদস্য নুরুল হকসহ পঞ্চায়েতের নেতৃবৃন্দ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করেন।
বাঘাছড়া চা বাগানের হেড টিলা ক্লার্ক শফিকুল ইসলাম বিষধর সাপের কামড়ে চা শ্রমিক কন্যার মৃত্যু সত্যতা স্বীকার করে বলেন, বৃহস্পতিবার সকালে হঠাৎ করে চা শ্রমিকরা জড়ো হয়ে হাসপাতালের কর্তব্যরত কোম্পান্ডারের বাসা ভাংচুর করে। পরে বাগান কর্তৃপক্ষ ও চেয়ারম্যান ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি শান্ত হয়।