শনিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কমলগঞ্জে গুণীজন সম্মাননা ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান ॥ গুণী যত বাড়বে সমাজ ততই আলোকিত হবে



কমলকুঁড়ি রিপোর্ট ॥
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে সৈয়দ মাসুম ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের উদ্যোগে গুণীজন সম্মাননা ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করা হয়। রোববার (০২ আগষ্ট) বিকাল সাড়ে ৫টায় উপজেলা পরিষদ হলরুমে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম মিঞা। শিক্ষা, মুক্তিযুদ্ধ ও লোক গবেষণার ক্ষেত্রে অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ৩ জন গুণী ব্যক্তিকে গুণীজন সম্মননা ক্রেস্ট, সনদ ও নগদ অর্থ প্রদান করা হয়। সম্মাননা প্রাপ্ত ব্যক্তিরা হলেন, শিক্ষায়-অধ্যাপক মো. রফিকুর রহমান (চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, কমলগঞ্জ), মুক্তিযুদ্ধে-আব্দুল মুনিম তরফদার (কমান্ডার, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, কমলগঞ্জ) এবং লোক গবেষণায়-আহমদ সিরাজ  (লেখক, লোক গবেষক ও উন্নয়ন চিন্তক)।
সৈয়দ মাসুম ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের সভাপতি কবি সাইয়িদ ফখরুলের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক প্রনীত রঞ্জন দেবনাথের সঞ্চালনায়

Pic--S M Trust-2অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা প্রকৌশলী কিরণ চন্দ্র দেবনাথ, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) মো. জাহাঙ্গীর আলম। সম্মাননা প্রাপ্ত অতিথিরা ছাড়াও অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান খন্দকার মোহাম্মদ হোসেন কুটি, সৈয়দ মাসুম ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের প্রধান পৃষ্টপোষক সৈয়দ মাসুম, গবেষক শামসুদ্দিন আকবর, একুশে টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি বিকুল চক্রবর্তী, কমলগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি এম, এ, ওয়াহিদ রুলু, সাধারণ সম্পাদক শাহীন আহমদ, কমলগঞ্জ সাংবাদিক সমিতির সভাপতি আব্দুল হান্নান চিনু, সাপ্তাহিক কমলগঞ্জ সংবাদ সম্পাদক মো. সানোয়ার হোসেন, ট্রাস্টের সমন্বয়কারী সৈয়দ মাহবুব, সাংবাদিক শাব্বির এলাহী, শিরীন শীলা, কমরেড সাইফুর রহমান, আং নুর-নুরজাহান চৌধুরী কল্যাণ ট্রাস্টের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিষ্টার, উপজেলা মধুচাষী সমিতির সভাপতি আলতাফ মাহমুদ, জেলা শব্দকর সমাজ উন্নয়ন সমিতির সভাপতি প্রতাপ শব্দকর প্রমুখ। অনুষ্ঠানে গুণীজন সম্মাননা প্রাপ্ত ৩ (শিক্ষায়-অধ্যাপক রফিকুর রহমান, মুক্তিযুদ্ধে-আব্দুল মুনিম তরফদার, লোক গবেষণায়-আহমদ সিরাজ) গুণীব্যক্তিকে সৈয়দ মাসুম ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের পক্ষ থেকে সম্মাননা ক্রেষ্ট, সনদ ও নগদ অর্থ এবং ৮ জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করা হয়।111
প্রধান অতিথির বক্তব্যে কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম মিঞা সম্মাননা প্রদানের আয়োজন করায় সৈয়দ মাসুম ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, যারা সংবর্ধিত হয়েছেন তাঁরা সকলেই বিদগ্ধ গুণীজন। উনাদের সম্মাননা জানাতে পেরে আমরা নিজেরাই সম্মানিত বোধ করছি। গুণী ব্যক্তিদের সম্মাননা দেয়া না হলে সমাজে গুণীজন জন্মাবে না। সমাজে গুণীজন যত বাড়বে ততই সমাজ সুন্দর ও আলোকিত হবে। সত্যিকার অর্থে যারা দেশ, সমাজ ও জাতিকে আলোকিত করছেন, তাদের সম্মান জানানো, স্বীকৃতি জানানোতে অন্যরাও আলোকিত হন। তাতে সমাজে সুস্থ সংস্কৃতি, সামাজিক মূল্যবোধ গড়ে উঠার ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখে। সম্বর্ধিতদের অসামান্য অবদানের কথা তুলে ধরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরও বলেন, এ পুরস্কার সমাজের কল্যাণে কাজ করার জন্য আরও বেশি অনুপ্রাণিত করবে। মানুষের কল্যাণে কাজ করতে উদ্বুদ্ধ করবে। শুধু আজকের এ সম্বর্ধিতরা সমাজের কল্যাণে কাজ করবেন তা নয়। আমাদের সবাইকে যার যার অবস্থান থেকে সমাজের কল্যাণে কাজ করতে হবে। তিনি আরো বলেন, শিক্ষার মান উন্নয়নে ও শিক্ষিত জাতি গঠনে সরকারের ব্যাপক আয়োজন রয়েছে। সরকারি উদ্যোগের পাশাপাশি সমাজের বিত্তবান, শিক্ষানুরাগী ব্যক্তিরা যদি এগিয়ে আসে তাহলে দেশের প্রচলিত শিক্ষা কার্যক্রম আরও গতিশীল হবে এবং দেশ দ্রুত উন্নতির দিকে এগিয়ে যাবে। কারণ সর্বক্ষেত্রে শিক্ষিত জাতি গড়ে তোলা না গেলে সুন্দর, অর্থনীতিতে সমৃদ্ধ রাষ্ট্র গড়ে তোলা সম্ভব হবে না। তিনি নতুন প্রজন্মকে শিক্ষার আলোয় আরও আলোকিত করে গড়ে তুলতে সর্বস্তরের মানুষকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।