শনিবার, ১ অক্টোবর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৬ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রোববার সারাদেশে শিবিরের সকাল-সন্ধ্যা হরতাল



কমলকুঁড়ি ডেস্ক::

রোববার সারাদেশে সকাল সন্ধ্যা হরতালের ডাক দিয়েছে ইসলামী ছাত্রশিবির। শুক্রবার দুপুরে ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক মনির আহমদ স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই হরতালে কথা জানানো হয়। প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, “আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দিয়ে নির্বিচারে নেতাকর্মীদের হত্যা, গুম, গুলি, নির্যাতন, বাড়িঘর ভাঙচুর ও গণগ্রেফতারের প্রতিবাদে আগামী ৮ ফেব্রুয়ারী রোববার দেশব্যাপী সকাল-সন্ধ্যা হরতালের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির।”

গণমাধ্যমে পাঠানো ওই প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে শিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি আবদুল জব্বার ও সেক্রেটারি জেনারেল আতিকুর রহমান বলেন, “ছাত্রজনতার মুক্তির আন্দোলনকে রাজনৈতিকভাবে মোকাবেলা করতে না পেরে নৃশংসতা ও অমানবিকতার পথ বেছে নিয়েছে অবৈধ সরকার। আন্দোলন শুরু হওয়ার পর থেকেই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে লেলিয়ে দিয়ে নেতাকর্মীদের বাসা থেকে ধরে নিয়ে নির্মমভাবে গুলি করে হত্যা করা হচ্ছে। অনেককে গ্রেফতারে পর অস্বীকার ও মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতনের পর রাতের আঁধারে ‘বন্দুকযুদ্ধে’র নাটক সাজিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে। কোনো কোনো নেতাকর্মীকে গুলি করে হত্যা করার পর গাড়ির নিচে ফেলে হত্যার নাটক সাজাতেও দ্বিধা করেনি।

বিবৃতিতে বলা হয়, চলমান আন্দোলনে এক মাসে চট্রগ্রামে ২, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ২, ঢাকায় ১, রাজশাহীতে ১, ও কুমিল্লায় ১ সহ ছাত্রশিবিরের ৭ নেতাকর্মীকে গুলি করে হত্যা ও শতাধিক নেতাকর্মীকে ধরে নিয়ে পায়ে পিস্তল ঠেকিয়ে গুলি করেছে রাষ্ট্রীয় বাহিনী। গত ২৪ ঘন্টায় দেশের বিভিন্ন স্থানে শিবিরের ২ নেতাকর্মীকে হত্যা ও ১৪ জনকে পায়ে পিস্তল ঠেকিয়ে গুলি করা হয়েছে। যারা বিভিন্ন কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র । ছাত্রশিবিরের ২ নেতা মেধাবী ছাত্র, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য সম্পাদক শাহাবুদ্দিন এং কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলা সভাপতি সাহাব উদ্দিন পাটোয়ারীকে গুলি করে নির্মমভাবে হত্যা করেছে যৌথবাহিনী। এর পাশাপাশি সারাদেশে ডাকাতের মতো নেতাকর্মীদের বাড়িঘরে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও লুটপাট করছে যৌথবাহিনী ও সরকার দলীয় ক্যাডাররা। চলছে নির্বিচারে গণগ্রেফতার। একটি স্বাধীন গণতান্ত্রিক দেশে এ ধরনের অসভ্য আচরণ কল্পনা করা না গেলেও এদেশে তা প্রতিদিনই ঘটছে। কিন্তু এভাবে চলতে দেয়া যায় না।”

শিবির নেতারা বলেন, “আমরা দেশের ছাত্রসমাজসহ সর্বস্তরের জনগণকে শান্তিপুর্ণভাবে হরতালকে শতভাগ সফল করার মাধ্যমে অপশাসন ও রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের দাঁতভাঙা জবাব দেয়ার আহবান জানাচ্ছি। আমাদের হরতাল হবে সম্পুর্ণ শান্তিপুর্ণ। কিন্তু সরকার যদি বাধা দেয়, তাহলে উদ্ভূত যেকোনো পরিস্থিতির দায় তাদের ওপরই বর্তাবে।”

এর আগে সংগঠনের নেতা শাহাবুদ্দিন হত্যার প্রতিবাদে রোববার থেকে রাজশাহী বিভাগের আট জেলায় ৪৮ ঘণ্টা হরতাল ডেকেছে ইসলামী ছাত্রশিবির । বলা হয়েছে, শনিবার বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করবে শিবির। ইসলামী ছাত্রশিবির রাজশাহী মহানগরী শাখার প্রচার সম্পাদক মোঃ আসাদুজ্জামানের পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।