মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

কমলগঞ্জে মিধিলির প্রভাবে ২০ হেক্টর আমন ফসল আক্রান্ত



কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ ও শ্রীমঙ্গল উপজেলায় ঘুর্ণিঝড় মিধিলির প্রভাবে বৃষ্টি ও বাতাসে আমন ধান ও শীতকালীন সবজীর ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। পাকা আমন ধান মাটিতে শুয়ে পড়েছে। বৃষ্টির কারণে অনেক কৃষক জমি থেকে পাকা আমন ধান কাটতে না পারায় লোকসানের শঙ্কায় রয়েছেন।

মৌলভীবাজারে কমলগঞ্জ ও শ্রীমঙ্গল উপজেলায় এবারের আমন ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। আমন কাটা ঠিক আগ মুহুর্তে ঘূর্ণিঝড় মিধিলির আগ্রাসনে
রোপনকৃত আমন আক্রান্ত ও শীতকালীন সবজী নষ্ট হয়েছে।
কৃষকেরা এখন আমন ধান কেটে ঘরে তোলার সময়। কিন্তু মিধিলি ধান কাটার সর্বনাশ করে দিয়েছে। শুধু আমন ধান নয় রবি ফসল নষ্ট হয়েছে।
সরেজমিন কমলগঞ্জ উপজেলার রহিমপুর, পতনঊষার, মুন্সীবাজার, শমশেরনগর, কমলগঞ্জ সদর, আলীনগর, আদমপুর, মাধবপুর, ইসলামপুর ইউনিয়ন ও পৌর এলাকায় প্রায় ২০ হেক্টর আমন ধান আক্রান্ত হয়েছে।
উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সুত্রে জানা যায়, চলতি বছরে ১৭ হাজার ৩০৮ হেক্টর জমিতে আমন চাষ করা হয়। কৃষকেরা গত এক সপ্তাহ ধরে ধান ঘরে তুলেছেন। এ ছাড়াও ১ হাজার ৫৯৫ হেক্টর জমিতে শীতকালীন সবজি ও ৫৫৫ হেক্টর জমিতে আলু, ২৭৯ হেক্টর টমেটো ও ৪৬৬ হেক্টর জমিতে শরিষা চাষ করা হয়েছে। অতিরিক্ত বৃষ্টিতে পাকা ধান ও সবজির কিছুটা ক্ষতি হয়েছে।
উপজেলার আলীনগর ইউনিয়নের জালালিয়া গ্রামের কৃষক প্রনব কান্তি সেন বলেন, আমার প্রায় ৫ কিয়ার জায়গা ঘূর্ণিঝড় মিধিলির প্রভাবে আমন ধান ক্ষতি গ্রস্ত হয়েছে। জানিনা ক্ষতি কিভাবে পুষিয়ে উঠতে পারবো।
কমলগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা জয়ন্ত কুমার রায় বলেন, কমলগঞ্জ উপজেলায় প্রায় ২০ হেক্টর আমন ধান আক্রান্ত হয়েছে। আমরা কৃষকের বলেছি দ্রুত ফসল তোলার জন্য।