শনিবার, ১ অক্টোবর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৬ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শমশেরনগরে  হাসপাতালের জমির দলিল হস্তান্তর ও সংবর্ধনা প্রদান



কমলকুঁড়ি রিপোর্ট


মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের শমশেরনগর দাতব্য হাসপাতাল স্থাপনে বিশিষ্ট কন্ঠশিল্পী সেলিম চৌধুরীকে আহ্বায়ক করে ২ বছর আগে শমশেরনগর হাসপাতাল বাস্তবায়ন কমিটি গঠন করা হয়েছিল। আর লন্ডন প্রবাসী শমশেরনগরের কৃতি সন্তান আলেয়া জামান হাসপাতালের প্রয়োজনীয় জমি দান করার প্রতিশ্রুতি দিলে সে জমিতে ইতিমধ্যে প্রশাসনিক ভবন নির্মাণ কাজ চলছে। সম্প্রতি প্রবাসী আলেয়া জামান দেশে আসার পরদিন গত সোমবার (২৩ মে) শমশেরনগর হাসপাতালের নামে ১ একর ৫১ শতক জমি দলিল করে দেন। এ উপলক্ষে মঙ্গলবার (২৪ মে) রাত ৮টায় শমশেরনগর নগরস্থ ব্রাদার্স পার্টি সেন্টারে আনুষ্ঠানিকভাবে জমির দলিল হস্তান্তর ও জমিদাতা দম্পতি আলেয়া জামান ও সারওয়ার জামানকে আনুষ্ঠানিকভাবে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান।
শমশেরনগর হাসপাতাল বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক কন্ঠ শিল্পী সেলিম চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব শামসুল হক মিন্টু ও গোলাম রাব্বির সঞ্চালনায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মৌলভীবাজারের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া। আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সিফাত উদ্দিন, উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) সোমাইয়া আক্তার, কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা ইয়ারদৌস হাসান, সিলেট নর্থ ইষ্ট মেডিক্যাল কলেজের অধ্যাপক ডা. রাবেয়া বেগম, সাংবাদিক খালেদ চৌধুরী, রাজনগরের কামারচাক ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সেলিম আহমেদ প্রমুখ। অনুষ্ঠানে হাসপাতালের নির্মাণ কাজ, হাসপাতালের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য সম্পর্কে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন হাসপাতাল বাস্তবায়ন কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক মুজিবুর রহমান রঞ্জু।
অনুষ্ঠানে বেশ কয়েকজন দাতা প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথির উপস্থিতিতে শমশেরনগর হাসপাতাল নির্মাণ কাজের জন্য তাদের আর্থিক সহায়তার চেক প্রদান করেন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান বলেন, শমশেরনগর ইতিহাস ঐতিহ্যের একটি স্থান। আজকের এত মানুষের আন্তরিক উপস্থিতি বলে দেয় শমশেরনগর হাসপাতাল নির্মাণ হবে, পুরো জেলা এ থেকে সেবা গ্রহণ করবে। আমি এর একজন অংশিদার হয়ে থাকব। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া বলেন, শমশেরনগর শিক্ষা ও চিকিৎসা নগরী হয়ে প্রতিষ্ঠা লাভ করবে। সবাই আন্তরিকভাবে এক হয়ে কাজ করলে এ হাসপাতাল তার কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছবে।