রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
Sex Cams

শমশেরনগরে বাসায় ডেকে নিয়ে চোখে স্প্রে দিয়ে ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে জখমের পর চুরির মামলা ॥ ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী ॥ আদালতে নির্যাতিতের মামলা



PIC-2
শমশেরনগর প্রতিনিধি ।।
গত ৬ সেস্পেটম্বর রাতে কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর বাজারে ব্যবসায়ীকে বাসায় ডেকে নিয়ে এক প্রবাসীর ভাড়াটে লোক দ্বারা চোখে স্প্রে মেরে হাত পা বেঁধে বেদড়কভাবে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। নির্যাতিত মুমুর্ষ ব্যবসায়ীকে আবার মিথ্যে ঘর চুরির মামলা দিয়ে গ্রেফতার করে পুলিশি নিরাপত্তায় চিকিৎসা প্রদান করা হচ্ছে। ঘটনার সংবাদ জানাজানি হলে এলাকাবাসী ক্ষুব্ধ হয়ে উঠছেন। প্রতিবাদে ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী বুধবার বিকালে প্রতিবাদ সমাবেশে ৪৮ ঘন্টার আল্টিমেটাম দিয়েছেন।  বৃহস্পতিবার মৌলভীবাজার সাব জজ আদালতে নির্যাতিত ব্যবসায়ীর বড় বোন মাহবুব আরা বাদী হয়ে ভাইকে অপহরণ করে হত্যার চেষ্টার অভিযোগে মামলা দায়ের করেছেন।
স্থানীয় এলাকাবাসী ও নির্যাতিত ব্যবসায়ীর বড় ভাই মাদ্রাসা শিক্ষক আব্দুস সালাম বলেন, তার ছোট ভাই ব্যবসায়ী আব্দুল কাইয়ূম (৪২) কে ফ্রান্স প্রবাসী শামছুল হক তার লোক দিয়ে বাসায় ডেকে প্রথমে চোখে মুখে স্প্রে নিক্ষেপ করে। পরে ভাড়াটে লোকজন কাইয়ূমের হাত পিছু মোড়া করে ও দু পা বেঁধে ক্রিকেটর স্ট্যাম্প, হকি স্টিক ও কাটের বর্গা দিয়ে বেদড়কভাবে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। এরপর গলায় রশি পেঁচিয়ে টানা হেঁচড়া করে হত্যার চেষ্টা করা হয়। খবর পেয়ে শমশেরনগর ইউপি চেয়ারম্যান ও পুলিশ ফাঁড়ির এসআই ঘটনাস্থলে গিয়ে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে নির্যাতনকারী শামছুল হক একটি মিথ্যা ঘর চুরির অভিযোগ দিলে পুলিশ আহত ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার দেখিয়ে একই রাত তিনটায় পুলিশি হেফাজতে দ্রুত মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। গুরুতর আহত ব্যবসায়ী কাইয়ূমের দেহে ১৪৪ টি আঘাতের চিহ্ন রয়েছে এবং তার মাথায় একাধিক আঘাত ও হাতের তিনটি স্থানে ভাঙ্গন রয়েছে। স্থানীয় ইউপি সদস্য ফারুক আহমদের পরিকল্পনায় প্রবাসী শামছুর হক এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে তারা অভিযোগ করেন। এদিকে ঘটনার সংবাদ প্রকাশের পর প্রতিবাদী মুখর হয়ে উঠছেন এলাকাবাসী। বুধবার বিকালে শমশেরনগর রেলওয়ে মাঠে শমশেরনগর ইউপি চেয়ারম্যান জুয়েল আহমদের সভাপতিত্বে ও শামছুল হক মিন্টুর পরিচালনায় প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বক্তব্য রাখেন শমশেরনগর বণিক কল্যাণ সমিতির সাবেক সম্পাদক মুহিবুর রহমান, শিক্ষক এ বি এম মাসুদুর রহমান, সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল গফুর, সাবেক ইউপি সদস্য হাজী জায়ফর আলী, সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল মোহিত, এম এ আউয়াল উজ্জল, ও ইউপি সদস্য জিতু মিয়া।
প্রতিবাদ সভার সভাপতি শমশেরনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জুয়েল আহমদ অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, প্রবাসী শামছুল আইন নিজের হাতে তুলে নিয়ে এ ধরনা ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটিয়ে পরে মিথ্যে চুরির মামলা দিয়েছেন। সভার শেষ বক্তব্যে ইউপি চেয়ারম্যান জুয়েল আহমদ বলেন দায়ী ইউপি সদস্য ফারুক আহমদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন ও ৪৮ ঘন্টার মধ্যে মিথ্যে মামলা প্রত্যাহার না হলে বড় ধরনের কর্মসূচি ঘোষণা করা।
ইউপি সদস্য ফারুক আহমদ তার উপর আরোপিত অভিযোগ সঠিক নয় বলে দাবী করেছেন। অভিযুক্ত প্রবাসী শামছুল হক বলেন, তার স্ত্রীর সাথে ব্যবসায়ী কাইয়ুম অনৈতিক সম্পর্ক গড়ে তুলেছিল। আর ঘটনার রাতে তাকে হাতে নাতে ধরে কিছু গণ ধোলাই দেওয়া হয়। তা হলে কেন মিথ্যে চুরির মামলা দিলেন এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, পারিবারিক সম্মানের কথা ভেবে ও কিছুটা হালকা করতে চুরির মামলা করেছেন। কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. এনামুল হক গুরুতর আহতাবস্থায় ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার ও চুরির মামলার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।