বৃহস্পতিবার, ৬ অক্টোবর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২১ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

স্বাধীনতার ৪৪ বছর পর শমশেরনগরে বাংলাদেশের প্রথম প্রতিরোধ দিবস পালন



কমলকুঁড়ি রিপোর্ট
১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ শুরু হলে ২৮ মার্চ  মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগরে পাক বাহিনীর একজন ক্যাপ্টেনসহ ৯ সেনা সদস্য বাংলাদেশে প্রথম প্রতিরোধ করে হত্যা করেছিল মুক্তিপাগল এলাকাবাসী। দেশ স্বাধীনের দীর্ঘ ৪৪ বছর পর এই প্রথম সেদিনকার প্রতিরোধকারী মুক্তিযোদ্ধাদের উপস্থিতিতে শোভাযাত্রা করে শহীদ মিনারে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। শমশেরনগর সাহিত্যাঙ্গনের আয়োজনে শনিবার (২৮ মার্চ) দিবসটি পালন করা হয়। এ দিবসটিকে স্মরণ করতে ও সেদিনকার অংশ গ্রহনকারী মুক্তিযোদ্ধাদের বর্তমান প্রজন্মের কাছে পরিচয় করিয়ে দিতে শমশেরনগর সাহিত্যাঙ্গন ২৮ মার্চ শমশেরনগর প্রতিরোধ দিবস পালন করে। শমমেরনগর সুজা মেমোরিয়াল কলেজ ও আইডিয়াল কিন্ডার গার্টেন স্কুলের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের অংশ গ্রহনে বিশাল একটি শোভা যাত্রা স্থানীয় বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে শমশেরনগর শহীদ মনিার চত্তরে মিলিত হয়। শনিবার বিকেলে কবি শাহজাহান মানিকের সঞ্চালনায় আলোচনা পর্বে  জাতীয় পতাকার সম্মান অক্ষুন্ন রাখতে প্রথমেই বর্তমান প্রজণ¥ শিক্ষার্থীদের হাতে জাতীয় প্রতাকা তুলে দেন মুক্তিযোদ্ধা খালেকুর রহমান। আলোচনা পর্বে শমশেরনগর প্রতিরোধ দিবসের উপর বক্তব্য রাখেন অধ্যক্ষ ম মুর্শেদুর রহমান, মুজিবুর রহমান, মুক্তিযোদ্ধা নির্মল দাস, মুক্তিযোদ্ধা দিপ্তি কমুার দাস, শহীদ পরিবার সদস্য আব্দুল মছব্বির, প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা ক্যাপ্টেন মোজ্জাফ্ফর আহমদের মেয়ে উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পারভীন আক্তার, মুক্তিযোদ্ধা খালেকুর রহমান ও মুক্তিযোদ্ধা ক্যাপ্টেন সাজ্জাদুর রহমান। আয়োজকরা আরো জানান, আগামীতে প্রতি বছর যথাযোগ্য মর্যাদায় এ দিবসটি পালন করা হবে।