শনিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কমলগঞ্জে শিক্ষকদের তোপের মুখে যোগদান করতে পারলেন না বিতর্কিত শিক্ষা অফিসার আনোয়ারুল ইসলাম



Pic-1
কমলকুঁড়ি রিপোর্ট ।।
সিলেটের বালাগঞ্জের বিতর্কিত উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. আনোয়ারুল ইসলাম শিক্ষকদের তোপের মুখে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে যোগদান করতে পারেননি। সোমবার সকাল সাড়ে ৮টা থেকে উপজেলা পরিষদের প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান নিতে থাকেন শিক্ষকরা। বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি কমলগঞ্জ উপজেলা শাখার আহবানে সকাল ১০টায় এক মানববন্ধন কর্মসুচী ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশ শেষে সকাল সাড়ে ১১টায় কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে বিতর্কিত উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. আনোয়ারুল ইসলামের কমলগঞ্জ উপজেলায় বদলী বাতিল করার জন্য প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর এর মহাপরিচালক বরাবরে কমলগঞ্জ উপজেলারপ্রাথমিক শিক্ষার গুণগত মান বজায় রাখার স্বার্থে সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকার পক্ষ থেকে একটি স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। যার অনুলিপি মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক, সিলেট বিভাগীয় প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের উপ-পরিচালক ও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে প্রদান করা হয়।
প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর এর পরিচালক (প্রশাসন) গত ২২ ফেব্র“য়ারি এক আদেশে সিলেটের বালাগঞ্জ থেকে কমলগঞ্জ উপজেলা শিক্ষা অফিসার হিসেবে বদলী করেন মো. আনোয়ারুল ইসলামকে। এর আগে তাকে গত ৪ ফেব্র“য়ারি ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলায় বদলী করা হয়। আনোয়ারুল ইসলামের আবেদনের অধিদপ্তর তাকে ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলায় বর্তমান কর্মস্থলের দায়িত্বভার গত রোববার (২২ ফেব্র“য়ারি) তারিখের মধ্যে হস্তান্তরের নির্দেশ দেন। অন্যথায় ২৩ ফেব্র“য়ারি সোমবার থেকে তাৎক্ষনিক অবমুক্ত হবে বলে গণ্য হবেন।
এদিকে বিতর্কিত উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. আনোয়ারুল ইসলাম কমলগঞ্জে যোগদান করার সংবাদে সোমবার সকাল সাড়ে ৮টা থেকে উপজেলা পরিষদের প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান নিয়ে উপজেলায় কর্মরত শিক্ষক-শিক্ষিকাবৃন্দ বিক্ষোভে ফেটে পড়েন। সকাল ১০টায় কমলগঞ্জ উপজেলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. ফয়ছল আল কয়েছ চৌধুরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন প্রধান শিক্ষক বীরেন্দ্র চন্দ, দেবাশীষ দেব, শংকর চন্দ্র দেবনাথ, মিজানুল হক স্বপন, আলেয়া বেগম, সঞ্জয় কান্তি দেব, সমরেন্দ্র সেনগুপ্ত বুলবুল, ফজলুর রহমান, ধর্মব্রত দাশ, ফয়জুর রহমান, ম. মুমিনুর রহমান প্রমুখ। সমাবেশে বক্তারা বলেন, কমলগঞ্জ উপজেলার সকল শিক্ষকরা ঐক্যবদ্ধ, কোন অবস্থাতেই হিন্দু-মুসলিমের সম্প্রীতিতে আঘাতকারী ও সিলেটীদের নিয়ে কটুক্তিকারী বিতর্কিত শিক্ষা অফিসার মো. আনোয়ারুল ইসলামকে তারা যেকোন মূল্যে কমলগঞ্জে যোগদান করতে দেওয়া হবে না বলে হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন।
সর্বশেষ খবরে জানা যায়, কমলগঞ্জে শিক্ষকদের বিক্ষোভের খবর মৌলভীবাজার থেকে দুইজন সহকারী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার সোমবার দপুরে সরেজমিন কমলগঞ্জে আসলে শিক্ষকরা তাদের অবস্থানে অনঢ় থাকেন।
উল্লেখ্য, গত ২৫ জানুয়ারি সিলেটের বালাগঞ্জ থেকে মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলায় বদলী হয়ে নতুন কর্মস্থলে যোগদান করতে আসলে শিক্ষকদের প্রতিরোধে তোপের মুখে সেখানে যোগদান না করেই ফিরে গেলেন বিতর্কিত উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. আনোয়ারুল ইসলাম।