শনিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
Sex Cams

জনপ্রশাসনমন্ত্রী হলেন আশরাফ



84174_f4ডেস্ক রিপোর্ট ।।

দপ্তরবিহীন মন্ত্রী ও ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামকে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। এলজিআরডি মন্ত্রণালয় থেকে প্রত্যাহারের সাত দিনের মাথায় প্রধানমন্ত্রীর পরই গুরুত্বপূর্ণ বলে পরিচিত জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীর দায়িত্ব দেয়া হলো তাকে। গতকাল বিকালে সৈয়দ আশরাফকে নতুন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। গত ৯ই জুলাই দপ্তরবিহীন করার সাত দিনের মাথায় প্রশাসনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এই মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেয়া হলো তাকে। গত ৭ই জুলাই একনেক বৈঠকে সৈয়দ আশরাফুল ইসলামকে মন্ত্রিসভা থেকে অব্যাহতি দেয়ার কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর ৯ই জুলাই অব্যাহতি সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করে তাকে দপ্তরবিহীন মন্ত্রী করা হয়। এরপরই ১৫ই জুলাই পরিবারের সঙ্গে ঈদ করতে সৈয়দ আশরাফ যুক্তরাজ্য যাওয়ার বিষয়টি সামনে চলে আসে। এ ছাড়া ১৪ই জুলাই মন্ত্রিসভার কলেবর বাড়ানোর শপথ অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও দপ্তরবিহীন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন না। এরপরই আওয়ামী লীগের বিভিন্ন মহলে গুঞ্জন শুরু হয়। প্রধানমন্ত্রী গণভবনে ডেকে ১৩ ও ১৪ জুলাই সৈয়দ আশরাফের সঙ্গে কথা বলেন। এদিকে বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর সৈয়দ নজরুল ইসলামের ছেলে সৈয়দ আশরাফকে দপ্তরবিহীন মন্ত্রী করার পর  থেকে রাজনৈতিক অঙ্গনে তা নিয়ে ব্যাপক আলোচনা চলছিল। এরপর নানা গুঞ্জনের মধ্যে শেখ হাসিনার সঙ্গে একান্তে কথা বলার পর লন্ডন যাত্রা বাতিল করে দেশেই থেকে যান
আশরাফ। তার দুদিনের মধ্যে নতুন দপ্তর পেলেন তিনি। সংস্থাপন মন্ত্রণালয়ের নাম পরিবর্তন করে জনপ্রশাসন করার পর আশরাফই এই দপ্তরের প্রথম পূর্ণ মন্ত্রী। গত দেড় বছর ধরে এই মন্ত্রণালয়ে প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করে আসছেন সাবেক শিক্ষা মন্ত্রী প্রয়াত এ এইচ এসকে সাদেকের স্ত্রী  ইসমত আরা সাদেক। এতদিন সরকার প্রধান শেখ হাসিনা এই মন্ত্রণালয় নিজের হাতে রেখেছিলেন। অবশেষে নানা ঘটনার পর প্রশাসনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বলে পরিচিত জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেয়া হলো সৈয়দ আশরাফকে।