রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শ্রীমঙ্গলে বসন্ত উৎসবে মিলনমেলা



কমলকুঁড়ি রিপোর্ট


বাতাসে বহিছে প্রেম, নয়নে লাগিলো নেশা, কারা যে ডাকিলো পিছে, বসন্ত এসে গেছে।

গানের কথাগুলো যেনো হৃদয়ে বসন্তের দখিনা পবনের দোল দিয়ে যায়।

দেখতে দেখতে শীত শেষ, বসন্ত এসে গেছে। বসন্তের বন্দনায় উৎসবের রং লেগেছে চায়ের দেশ শ্রীমঙ্গলে।

চায়ের রাজধানী পর্যটন সমৃদ্ধিময় এলাকা শ্রীমঙ্গলের নানা বয়সের নারীরা বসন্তকে বরণ করতে বর্ণিল সাজে সজ্জিত হয়ে আনন্দ উচ্ছ্বাসে মেতেছেন।

নারীরা একত্রিত হয়ে প্রাণের ছোঁয়ার উল্লাসে বরণ করে নেন ঋতুরাজ বসন্তকে।

শুক্রবার বিকেলে শ্রীমঙ্গলের টি হেভেন রির্সোটে শিল্পী কল্যাণ সংস্থার আয়োজনে বসন্ত উৎসব অনুষ্ঠিত হয়।

বাসন্তী রঙয়ের পোশাকের পাশাপাশি গেরুয়া হলুদ, সরষে হলুদ এমনকি লাল রঙয়ের পোশাক পরেছেন  তরুণ- তরুণীরা। মাথায় ফুলের মুকুট পরে নাচে-গানে উল্লাসে মেতে উঠেন শতাধিক নারী।  বিভিন্ন প্রতিযোগিতা অংশগ্রহণ করে আনন্দ আর উল্লাসে বসন্তকে বরণ করেন তারা। এসময় মানুষের সমাগমে মুখর হয়ে ওঠে অনুষ্ঠানস্থল। এবারকার উৎসব পালনে নতুনত্বের পাশাপাশি সাজেও এসেছে ভিন্নতা।

বসন্ত উৎসবে  বিভিন্ন দেশীয় খেলাধুলার প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। মহিলাদের জন্য ছিল আকর্ষনীয় কলস খেলা, বালিশ খেলা, রঁশি টানাটানি, ঝুরিতে বল নিক্ষেপ। পাশাপাশি ছিল পুরুষদের জন্যও  রশি টানাটানি ইত্যাদি।

মোমিনুল হোসেন সোহেল এর প্রানবন্ত উপস্থাপনায় বসন্ত উৎসবে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডা. হরিপদ রায়, ডা. সত্যকাম চক্রবর্তী, ডা. বিনেন্দু ভৌমিক, অধ্যাপক অবিনাশ আচার্য, দেবাশীষ চৌধুরী রাজাসহ আরো অনেকে।

এ বসন্ত বরণ উৎসবে বিকেল থেকে রাত  ৯টা পর্যন্ত চলে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, র‍্যাফেল ড্র। পরে ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।