শনিবার, ৬ মার্চ ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ২২ ফাল্গুন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

আজ শেষ হচ্ছে প্রচারণা : ১৬ জানুয়ারি কমলগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচন



কমলকুঁড়ি রিপোর্ট

আগামী ১৬ জানুয়ারি মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ পৌরসভায় ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। কমলগঞ্জ পৌরসভায় ৯ টি ওয়ার্ডে মোট ১৩ হাজার ৯ শত পাঁচজন ভোটার রয়েছেন। মেয়র পদে ৪ জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩১ জন, সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. জাহাঙ্গীর আলম তালুকদার জানান, ইতোমধ্যে সুষ্ঠু নির্বাচন করার লক্ষে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে।

ইতিমধ্যেই নির্বাচনকে ঘিরে বিরাজ করছে উৎসব মুখর পরিবেশ। প্রার্থী ও সমর্থকরা রাতের ঘুম হারাম করে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ভোট চাইছেন। পোস্টারে ছেয়ে গেছে প্রধান সড়কসহ প্রতিটি অলিগলিতে। মেয়র পদে প্রার্থী হয়েছেন মোট ৪ জন। শেষ সময়ে সাধারণ মানুষের মাঝেও নির্বাচন নিয়ে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ। সাধারণ মানুষের ধারনা লড়াই হবে ত্রিমুখী। পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নৌকার মনোনয়ন নিয়ে নির্বাচন করছেন কমলগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক বর্তমান মেয়র মো. জুয়েল আহমেদ। বিএনপি থেকে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন উপজেলা বিএনপির সাবেক সম্পাদক মো. আবুল হোসেন। কিন্তু আওয়ামী লীগ থেকে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছেন জেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি বর্তমান কাউন্সিলর মো. আনোয়ার হোসেন ও উপজেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক লীগের আহ্বায়ক ঠিকাদার মো. হেলাল মিয়া। যদিও ইতোমধ্যে তাদের দুজনকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। তবে তৃণমূলের ভোটারদের মধ্যে তাদের জনপ্রিয়তা রয়েছে। যে কারণে কমলগঞ্জ পৌরসভার ভোটাররা বলছেন নির্বাচনে লড়াই হবে ত্রিমুখী। পুরো পৌর এলাকাজুড়ে বিরাজ করছে উৎসবের আমেজ, প্রচণ্ড শীত ও ঘন কুয়াশা উপেক্ষা করে উৎসব মুখর পরিবেশে প্রতিটি ওয়ার্ডে প্রচারণার শেষ সময়ে প্রার্থীরা ব্যস্ত সময় পার করছেন। অপরদিকে বিএনপির একক প্রার্থী থাকলেও দলের মধ্যে গ্রুপিং থাকায় সুবিধা করতে পারছেন না বিএনপির (ধানের শীষ) প্রার্থী মো. আবুল হোসেন। যদিও ভেদাভেদ ভুলে ধানের শীষের প্রার্থীকে বিজয়ী করতে এখন এক কাতারে সকল গ্রুপ। তৃণমূল বিএনপির নেতা কর্মীরা মনে করেন সকল গ্রুপিং নিরসন করে সঠিক প্রার্থী নির্বাচন করলে এবার বিএনপির বিজয় নিশ্চিত ছিল। গত পৌর নির্বাচন ছাড়া বাকী নির্বাচন গুলোতে বিএনপির প্রার্থীরাই বিজয়ী হয়েছিলেন। সাধারণ ভোটারদের মতে এবারের নির্বাচনে মো. জুয়েল আহমেদ (নৌকা), মো. আনোয়ার হোসেন (নারিকেল গাছ) ও মো. হেলাল মিয়া (জগ) এর মধ্যে ত্রিমুখী লড়াই হবে।