মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ মাঘ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

আদমপুরে মণিপুরী কালচারাল কমপ্লেক্সে মহারাসলীলা অনুষ্ঠিত




কমলকুঁড়ি রিপোর্ট
বৃহত্তর সিলেটের বিভাগের নৃ-গোষ্ঠী মৈতৈ মণিপুরী সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় উৎসব মহারাসলীলা করোনা কালীন থাকার কারণে স্বাস্থ্যবিধি মেনে যথাযোগ্য মর্যদায় ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে।
সোমবার (৩০ নভেম্বর) দুপুরে শ্রীকৃষ্ণের ছোটবেলার রাখাল নাচের মধ্য দিয়ে শুরু হয় রাসপূর্ণিমার শুভ সূচনা। সন্ধ্যায় শুরু হয় আলোচনা সভা। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।
মণিপুরী কালচারাল কমপ্লেক্সে পরিচালনা কমিটির সভাপতি জয়ন্ত সিংহের সভাপতিত্বে ও প্রধান শিক্ষক শান্ত কুমার সিংহ এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে রাস উৎসব এর মূল বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন লেখক, গবেষক এ কে শেরাম। আলোচনায় অংশ নেন কমলগঞ্জ রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি পিন্টু দেবনাথ। উপস্থিত ছিলেন মণিপুরী কালচারাল কমপ্লেক্সে পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক ইবুংহাল সিংহ শ্যামল, রাসোৎসব কমিটির সভাপতি রাধা মোহন সিংহ, দৈনিক আজকালের কমলগঞ্জ প্রতিনিধি আহমেদুজ্জামান আলম প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি সিলেট সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, এই রাস উৎসবে নিজে আগ্রহ প্রকাশ করে আসতে পেরে সৃষ্টিকর্তার কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। সিলেট নগরীতে অবস্থানরত মণিপুরি সম্প্রদায়ের সাথে বিভিন্ন ভাবে ধর্মীয়, সামাজিক ও পারিবারিকভাবে আমার নিবিড় সম্পর্ক রয়েছে। কমলগঞ্জে আমার বাড়ী। আমার মাটিতে এসে রাস উৎসব উপভোগ করতে পেরে নিজেকে খুব গর্বিত মনে করছি। তিনি বলেন, করোনাকালীন সময়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ধর্মীয় উৎসব উদযাপন হচ্ছে। আমরা সকলেই প্রার্থনা বা দোয়া করি এই ভাইরাস যেন দূর হয় এবং যারা পরলোক গমন করছেন তাদের আত্মার মাগফেরাত ও যারা অসুস্থ তাদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করছি। আপনাদের এই অনুষ্ঠানে সব সময় থাকতে পারি এবং আগামী বছরে যেন এই উৎসব আরো সুন্দর ও জাকজমক পরিবেশে হয় সেই আশা ব্যক্ত করি। তিনি রাসোৎসব কমিটিকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জ্ঞাপন করেন।
রাত ১২ টায় মহারাসলীলা অনুষ্ঠিত হয়। মৈতৈ মণিপুরী মেয়েরা গোপী  ও শ্রীকৃষ্ণ সেজে রাস নৃত্যে মেতে উঠেন। ঊষালগ্নে সমাপ্তি হয় এই রাস উৎসব। দর্শনার্থীরা উপভোগ করে সকাল বেলায় গন্তব্য স্থলে ফিরে যান।