শনিবার, ১ অক্টোবর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৬ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

হুইপ সাহাব উদ্দিনকে সংবর্ধনা প্রদান



কমলকুঁড়ি রিপোর্ট ॥
জাতীয় সংসদের হুইপ সাহাব উদ্দিন এমপি কুলাউড়া-শাহবাজপুর রেলওয়ে লাইন প্রকল্প ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন উদ্বোধন করায় প্রথমেই বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধান মন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে প্রাণঢালা অভিনন্দন জানিয়ে বলেছেন, ১৩ বছরের বেশি সময় বন্ধ থাকা রেলপথটি ২০০২ সালের ৭ জুলাই বিএনপি জোট সরকার বন্ধ করে দিয়েছে। ফলে ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষ পড়েন বিপাকে। তিনি বলেন কুলাউড়া-শাহাবাজপুর রেললাইনের পাশে রেলওয়ের ভূমির বিভিন্ন স্থানে অবৈধ দখলে পাকাঘর নির্মাণসহ বিভিন্ন স্থাপনা তৈরি করে ভূমিখেকো চক্র। হুইপ বলেন, কুলাউড়া জংশন থেকে শাহবাজপুর হয়ে সরাসরি ভারতে ব্রডগ্রীজের রেলপথ কাজ শুরু হয়ে ২০১৭ সালে শেষ হবে। বর্তমানে দু’দেশের মধ্যে প্রটোকল সই হয়েছে। এতে মৌলভীবাজারের কুলাউড়া, জুড়ী ও বড়লেখা এবং সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলার ১০ লক্ষাধিক মানুষ উপকৃত হবে।

Kulaura Sahabuddin Songbordona (1)
১১ জুন বৃহস্পতিবার বেলা ২টায় ঢাকা থেকে পারাবত ট্রেনে কুলাউড়ায় জংশন স্টেশনে আসলে রেলওয়ে শ্রমিকলীগ আয়োজিত ডিজিটাল বাংলাদেশের উন্নয়নের রূপকার, কুলাউড়া-শাহাবাজপুর রেললাইন ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন উদ্বোধক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে প্রানঢালা অভিনন্দন ও এ রেল লাইন চালুর প্রধান উদ্দোক্তা হুইপ সাহাব উদ্দিন এমপি (তাকে) দেয়া সংবর্ধনা অনুষ্টানে প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এ কথাগুলো বলেন।
কুলাউড়া জংশন স্টেশনে রেলওয়ে শ্রমিকলীগের সভাপতি মোঃ নাজমুল হক মতিনের সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক মোঃ আব্দুর রহিমের পরিচালনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন মোঃ আব্দুল মতিন এমপি, কুলাউড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও ভুকশিমইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রেনু, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি অধ্যক্ষ আব্দুর রউফ, বড়লেখা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম সুন্দর, বড়লেখা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ডাঃ প্রনয় কুুমার দে, জুড়ী আওয়ামীলীগ নেতা বদরুল ইসলাম, রেলওয়ে টিআইসি (পরিবহন) আতাউর রহমান আতা, স্টেশন মাষ্টার মীর্জা শামসুল ইসলাম, শ্রমিকলীগ নেতা গেন্দু চৌধুরী, কুলাউড়া উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক কামরুল বখশ।
অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, কুলাউড়া রেলওয়ে শ্রমিকলীগের উপদেষ্টা  হুমায়ুন পাটোয়ারী ও আব্দুস সালাম খান, সহ সভাপতি মুহিব উদ্দিন, যুগ্ম সম্পাদক আব্দুল খালিক প্রমুখ।
সভায় সংবর্ধিত হুইপ সাহাব উদ্দিন এমপিকে কুলাউড়া উপজেলা আওয়ামীলীগ, শ্রমিকলীগ, ছাত্রলীগ, নিরাপদ স্বাস্থ্যরক্ষা আন্দোলনসহ বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়।

জুড়ীতে হুইপ শাহাব উদ্দিনকে সংবর্ধনা প্রদান
জুড়ী সংবাদদাতা জানান ।।

কুলাউড়া-শাহবাজপুর রেললাইন পূনঃস্থাপন সংস্কার কাজের বাংলাদেশের ফ্যধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি উদ্বোধন করায় জাতীয় সংসদের হুইপ আলহাজ্ব মোঃ শাহাব উদ্দিন এমপিকে জুড়ীতে এক বিশাল নাগরিক সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে।
১১ জুন বৃহস্পতিবার বিকেলে ঢাকা থেকে জুড়ীতে পৌঁছালে হুইপ মোঃ শাহাব উদ্দিন এমপিকে জুড়ী চৌমুহনীতে জুড়ী উপজেলাবাসীর পক্ষ থেকে এক বিশাল নাগরিক সংবর্ধনা দেয়া হয়। জুড়ী উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক আলহাজ্ব মোঃ শফিক আহমেদের সভাপতিত্বে ও জুড়ী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শেখরুল ইসলামের পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের হুইপ ও মৌলভীবাজার-১ (জুড়ী-বড়লেখা) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ শাহাব উদ্দিন। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মৌলভীবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ বদরুল হোসেন, জুড়ী উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান রনজিতা শর্মা। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বড়লেখা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম সুন্দর, জুড়ী উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক ও ফুলতলা ইউনিয়ন পরিষদের ৪ বারের নির্বাচিত সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ মাসুক আহমদ, জুড়ী উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুস সালাম, মোঃ সামছুজ্জামান রানু, আব্দুল কাদির দারা, শ্রীকান্ত দাস, জুবায়ের হাসান জেবলু, ডাঃ কাজী আকমল হোসেন, আব্দুল মতলিব, এম.এ মান্নান, ইমরুল ইসলাম, সামছু মিয়া, জুড়ী উপজেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক রিংকু রঞ্জন দাস, জেলা যুবলীগ নেতা আহমদ কামাল অহিদ, জুড়ী উপজেলা শিল্পকলা একাডেমীর সাধারন সম্পাদক মামুনুর রশিদ সাজু, জুড়ী উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক শরদেন্দু দাশ শেখু, ভবানীগঞ্জ বাজার কমিটির সভাপতি হাজী আয়াজ উদ্দিন, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রধান শিক্ষক ইসহাক আলী, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির নেতা শিক্ষক মোঃ মুজিবুর রহমান, এম.ইউ শিক্ষা সেবা ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক ও সেন্ট্রাল জেনারেল হসপিটাল জুড়ী’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাংবাদিক সাইফুল ইসলাম সুমন, জুড়ী উপজেলা যুবলীগ নেতা জামিল আহমেদ, আবুল খায়ের সায়মন, হাসান তারেক, জুড়ী উপজেলা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি কয়েছ আহমেদ, সাধারন সম্পাদক আব্দুল মতিন, সাংগঠনিক সম্পাদক জাকির হোসেন সুজল, জুড়ী উপজেলা শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদের সভাপতি শাহ-আলম, জুড়ী উপজেলা বঙ্গবন্ধু প্রজন্মলীগের সভাপতি ইয়াছিন আকরাম ভুইয়া, সাধারন সম্পাদক কয়ছর আহমেদ রুবেল, জুড়ী কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়ছল আহমেদ, সাধারন সম্পাদক আব্দুল হান্নান, সাংগঠনিক সম্পাদক ইকবাল ভুইয়া, ছাত্রলীগ নেতা কামরুল ইসলাম, মোঃ মুবিন, লিটন আহমেদ, জাবেল আহমেদ প্রমূখ।
জুড়ী উপজেলাবাসীর পক্ষ থেকে দেয়া নাগরিক সংবর্ধনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে হুইপ আলহাজ্ব মোঃ শাহাব উদ্দিন এমপি বলেন, বিএনপি-জামায়াত সরকার কুলাউড়া-শাহবাজপুর রেল লাইন বন্ধ করে দিয়ে ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষকে চরম বিপাকে ফেলে। জনগণের দাবির প্রেক্ষিতে বর্তমান সরকার এই রেল লাইন চালু করছে। আমাদের প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর কন্যা দেশরতœ শেখ হাসিনা ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে সঙ্গে নিয়ে আন্তর্জাতিক ব্রডগেজ কুলাউড়া-শাহবাজপুর রেল লাইন সংস্কার কাজের উদ্বোধন করেছে এটি সরকারের বড় অর্জন। আগামীতে আসামের সঙ্গেও রেল যোগাযোগ পুন:স্থাপিত হবে। কুলাউড়া-শাহবাজপুর রেল লাইন চালু করায় আমি আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে কুলাউড়া-জুড়ী-বড়লেখা তথা মৌলভীবাজার জেলাবাসীর পক্ষ থেকে ধন্যবাদ, কৃতজ্ঞতা ও অভিনন্দন জানাচ্ছি।
এদিকে ২৬ মে কুলাউড়া-শাহবাজপুর রেলপথ চালুর লক্ষ্যে একনেকের বৈঠকে ৬৭৮ কোটি টাকা অনুমোদন হয়। ৬ জুন ঢাকায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে কুলাউড়া-শাহবাজপুর রেলপথ সংস্কার কাজের যৌথভাবে উদ্বোধন করবেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।
সুত্র জানায়, কুলাউড়া থেকে শাহবাজপুর পর্যন্ত ৪২ কিলোমিটার দীর্ঘ লাইনে চলাচলকারী ট্রেনের নাম ছিল ‘লাতুর ট্রেন’। এক সময় এ রেলপথ দিয়ে ভারতে করিমগঞ্জ পর্যন্ত মালামাল বহন করা হতো। এ রেললাইনে শাহবাজপুর, মুড়াউল, বড়লেখা, কাঠালতলী, দক্ষিনভাগ ও জুড়ী ষ্টেশন ছিল। ২০০২ সালের ৭ জুলাই বিএনপি-জামাত জোট সরকার রেলপথে ঘন ঘন ট্রেন র্দূঘটনা কাঠের স্লিপার, সেতুসহ অন্যান্য যন্ত্রাংশ সংস্কারের অভাব, লোকসান সহ নানা কারণ দেখিয়ে লাতুর ট্রেনটি বন্ধ করে দেয়। ফলে ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষ পড়েন চরম বিপাকে, বেহাত হয়ে যায় রেলওয়ের ভূমি ও রেলপাত, ক্লিপ, নাট-বল্টু, পাথর চুরি হয়ে যায় কোটি কোটি টাকার সম্পদ। এরপর রেলপথটির সংস্কারসহ ট্রেন চলাচল চালুর দাবিতে বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন বিভিন্ন আন্দোলন কর্মসূচী পালন করে।
২০১৩ সালের ৯ নভেম্বর বড়লেখায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সফরে এলে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ শাহাব উদ্দিন রেল লাইন চালুর দাবী জানান। শেখ হাসিনা তার বক্তব্যে রেল লাইন চালুর ঘোষনা দেন। অবশেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার কথা রাখলেন।

বড়লেখায় হুইপ শাহাব উদ্দিনকে সংবর্ধনা প্রদান
বড়লেখা সংবাদদাতা জানান,

কুলাউড়া-শাহবাজপুর রেললাইন পূনঃস্থাপন সংস্কার কাজের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন হওয়ায় জাতীয় সংসদের হুইপ মোঃ শাহাব উদ্দিন এমপিকে ১১ জুন বৃহস্পতিবার বিকেলে বড়লেখায় নাগরিক সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে।  সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জাতীয় সংসদের হুইপ মোঃ শাহাব উদ্দিন এমপি বলেন, আওয়ামীলীগ সরকার জণগণের জন্য কাজ করে। তাই সরকার কথায় ও কাজে মিল রেখে জনগণের উন্নয়ন করে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রূপকল্প ২০২১ বাস্তবায়নের ধারাবহিকতায় তৃণমুল পর্যায়ের জনগণের জীবন মান উন্নয়ন সাধিত হচ্ছে।
হুইপ বলেনে, বর্তমান সরকার গ্রামীন পর্যায়ে বিদ্যুৎ, যোগাযোগ, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সহ বিভিন্ন খাতে সাধারণ মানুষের উন্নয়নের জন্য বিভিন্ন বাস্তবমুখি পদক্ষেপ গ্রহণ করে কাজ করছে। অন্যদিকে বিএনপি-জামায়াত জোট দেশে-বিদেশে একের পর এক চক্রান্ত করে যাচ্ছে। এদের চক্রান্তকে নস্যাৎ করার জন্য তিনি জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানান।
হুইপ আরো বলেন, বিএনপি-জামায়াত সরকার সড়ক পরিবহনের সাথে আতাত করে কুলাউড়া-শাহবাজপুর রেল লাইন বন্ধ করে দেয়। জনগণের দাবীর প্রেক্ষিতে বর্তমান সরকার রেল লাইন চালু করছে। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে সাথে নিয়ে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক ব্রডগেজ এ রেল লাইন সংস্কার কাজের উদ্বোধন করেন। এটি সরকারের বড় অর্জন। আগামীতে আসামের সাথেও রেল যোগাযোগ পূণঃস্থাপিত হবে।
আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি নিমার আলীর সভাপতিত্বে ও যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ার উদ্দিনের পরিচালনায় অনুষ্টিত নাগরিক সংবর্ধনা সভায় বক্তব্য রাখেন বড়লেখা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম সুন্দর, বড়লেখা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাঃ প্রণয় কুমার দে, সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সোয়েব আহমদ প্রমুখ।