মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কমলগঞ্জে কাল বৈশাখী ছোবলে ৫ শতাধিক ঘর, সহস্রাধিক গাছপালা বিধ্বস্ত ॥ বিদ্যুৎ ব্যবস্থা লন্ডভন্ড ॥ আহত-২



12
কমলকুঁড়ি রিপোর্ট
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে মঙ্গলবার রাতে কাল বৈশাখীর ছোবল ও ঘূর্ণিঝড়ে প্রায় ৫ শতাধিক ঘর আংশিক ও সম্পূর্ণ বিধ্বস্ত হয়েছে। সহ¯্রাধিক এর উপরে গাছ পালা এবং বিদ্যুৎ ব্যবস্থা লন্ডভন্ড হয়। গাছ ও বিদ্যুতের খুটি উপড়ে পড়ায় কমলগঞ্জ-শ্রীমঙ্গল রাস্তা বন্ধ রয়েছে। এঘটনায় স্বামী ও স্ত্রী দুই জন আহত হয়েছে।
বুধবার সরজমিন গিয়ে দেখা যায়, কমলগঞ্জ উপজেলার মুন্সীবাজার ইউনিয়নের হরিস্মরন গ্রামের সনাতন মল্লিক (৩৬) এর ঘরে গাছ উপড়ে পড়ে তিনিসহ ও তার স্ত্রী মায়া মল্লিক (২৭) গুরতর আহত হন। তাদেরকে মৌলভীবাজার সদও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ভাগ্যক্রমে তাদেও ছেলে মেয়ে  সুমী (৫), অপূর্ব (৩) ও রনি (১) কোন ক্ষতি হয়নি। ঘরটি সম্পূর্ণরুপে বিধ্বস্ত হয়েছে।
এদিকে  কমলগঞ্জ উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান জানান, ইউনিয়ন পরিষদের তালিকানুযায়ী ১৮৯টি ঘর সম্পূর্ণরুপে বিধ্বস্ত ও ২৮৫ ঘর আশিংক ভাবে বিধ্বস্থ হয়েছে। সহ¯্রাধিক গাছপালা ও বিভিন্ন স্থানে বিদ্যুতের খুটি উপড়ে গিয়ে বিদ্যুৎ ব্যবস্থা লন্ডভন্ড হয়েছে। মাধবপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের টিনের চাল উড়িয়ে নিয়ে যায়। কমলগঞ্জের সংরক্ষিত বনাঞ্চল লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানে সংলগ্ন স্থানে গাছ ও বিদ্যুৎ ব্যবস্থা লন্ডভন্ড হওয়ায় কমলগঞ্জ-শ্রীমঙ্গল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। সিলেট-আখাউড়া সেকশনের শমশেরনগর রেলওয়ে ষ্টেশন মাস্টার মো. কবির জানান, কালবৈশাখী ঝড়ে লাউয়াছড়া উদ্যান এলাকায় রেলপথে প্রায় শতাধিক গাছ ভেঙ্গে পড়ে। ফলে রাত আড়াইটা থেকে শ্রীমঙ্গল ষ্টেশনে সিলেটগামী উদয়ন, উপবন ও সিলেট থেকে ছেড়ে আসা কালনী, জালালাবাদ ও কুশিয়ারা ট্রেন লংলা, শমশেরনগর ষ্টেশনে আটকা পড়ে। রেল পথের উপর ভেঙ্গে পড়া গাছ সরিয়ে বুধবার সকাল সাড়ে ৮টায় ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক করা হয়।
এদিকে প্রচন্ড বেগে কালবৈশাখী ঝড়ে বিভিন্ন স্থানে ৪র্থ বারের মতো বৈদ্যুতিক খুঁটি ভেঙ্গে ও বৈদ্যুতিক তার ছিড়ে লন্ডভন্ড হয়ে পড়ে বিদ্যুৎ ব্যবস্থা। ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। এছাড়া ৩০ হেক্টর জমির ব্যুরো ফসল পানিতে তলিয়ে গেছে। নি¤œাঞ্চল প্লাবিত রয়েছে।